স্কুলছাত্রকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা

ময়মনসিংহের ভালুকায় রব্বানী নামে ১২ বছরের এক স্কুলছাত্রকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ দুপুরে উপজেলার হোসেন আলী সরকার একাডেমী ও জামিরদিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পেছনে থেকে তার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত রব্বানী শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার যোগানীয়া ইউনিয়নের কাপাসিয়া গ্রামে শফিকুল ইসলামের ছেলে। সে ভালুকার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের জামিরদিয়া আইনুল উলুম দাখিল মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র ছিল।

স্থানীয়রা জানান, শফিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে এ এলাকারএমদাদুল হক মাষ্টারের বাসায় ভাড়ায় থাকতেন। তিনি জামিরদিয়া মোড়ে রেডিও-টিভির মেরামতের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। নিহতর বাবা শফিকুল ইসলাম জানান, তার ছেলে শনিবার রাতে নিখোঁজ হয়। এরপর সে আর বাড়ীতে ফিরে আসেনি। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখোজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। আজ দুপুরে ওই স্থানে তার গলাকাটা লাশ পরিত্যক্ত অবস্থায় দেখা যায়। পুলিশের ধারণা, পরিকল্পিতভাবে রব্বানীকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

ভালুকা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, ঘঁনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা নেয়া হয়েছে। অভিযুক্তদের চিহিৃত করে গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শর্টলিংকঃ