শেষ মূহর্তে জমে উঠেছে গাইবান্ধার পশুর হাট

শেষ মূহর্তে গাইবান্ধায় জমে উঠেছে কোরবানীয় বাজার। তবে গরুর দাম নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতাদের রয়ে নানা ধরণের পতিক্রিয়া। অন্য দিকে করোনার ভয়াবহ সংক্রমণের মধ্যেই স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই গাইবান্ধার দারিয়াপুর, মাঠেরহাট ও ভরতখালী পশু হাটে ভিড় জমাচ্ছে মানুষ, আর এতে করে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা রয়েছে।

সকাল থেকে সদর উপজেলার দাড়িয়াপুর, মাঠেরহাট ও সাঘাটার ভরতখালীতে বসেছে কোরবানির পশুর হাট, আর হাটে সামাজিক দূরত্ব না মেনে ক্রেতা-বিক্রেতারা ছুটে বেড়াচ্ছে।

এমন পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে মানুষের সমাগম ঘটিয়ে পশু হাটের আয়োজন করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সচেতন নাগরিকরা। হাটে অনেকেই সামাজিক দূরত্ব না মেনেই মুখে মাস্ক না দিয়ে চলাচল করছে। কোরবানির এই সময়ে গাইবান্ধা জেলায় করোনা রোগী বেড়ে যাওয়ায় আশংকা রয়েছে, কেননা গরু বাজারে অনেকেই সামাজিক দূরত্ব মানছে না।

এ ব্যাপারে দারিয়াপুর হাট ইজারাদার আরিফ মিয়া রিজুর সাথে কথা বলে জানা গেছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে অন্যান্য হাটের তুলনায় এ হাটে ক্রেতা এবং বিক্রেতারা খুব সুষ্ঠভাবে গরু কেনাকাটা করতে পারছে।

শর্টলিংকঃ