শততম টি-টোয়েন্টিতে বড় জয় পেল বাংলাদেশ

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে ৩ ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে দুই ওপেনার সৌম্য সরকার ও নাঈম শেখের ফিফটিতে জিম্বাবুয়েকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে নিজেদের শততম টি-টোয়েন্টি ম্যাচটা রাঙিয়ে রাখলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

নাঈম ৬৬ রানে অপরাজিত থাকেন, সৌম্যের ব্যাট থেকে আসে ৫০ রানের ইনিংস।১৫৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ধীরগতির শুরু পায় বাংলাদেশ দল, চতুর্থ ওভারে আসে প্রথম বাউন্ডারি। দুই ওভারে ২৬ রান তুলে পরিস্থিতি সামাল দেন দুই ওপেনার সৌম্য ও নাঈম, প্রথম ৩ ওভারে ১১ রান তোলা বাংলাদেশ পাওয়ার প্লে শেষে ৪৩ রানের সংগ্রহ পায়।

এরপর সময় যত গড়িয়েছে ততই স্বাছন্দে ব্যাট করেছেন সৌম্য সরকার ও নাঈম শেখ, উদ্বোধনী জুটিতে দুজনে গড়েন শতরানের জুটি। ৫০ রান করে সৌম্যের রান আউটে ভাঙে ১০২ রানের জুটি, ওয়ানডাউনে নামেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ফিফটি পূর্ণ করেন আরেক ওপেনার নাঈম শেখও, ১৫ রান করে রান আউটে বাংলাদেশকে জিতিয়ে ফেরানো হয়নি রিয়াদের।শেষ ৩ ওভারে জয়ের জন্য ২৭ রান প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের, ১৮ তম ওভারে ১৬ রান তুলে দলের জয় নিশ্চিত করেন নাঈম শেখ ও নুরুল হাসান সোহান। ৭ বল হাতে রেখেই ৮ উইকেটের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ, নাঈম ৬৬ ও সোহান ১৬ রানে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই ওপেনার টাডিওয়ানাশে মারুমানিকে হারায় জিম্বাবুয়ে, ৭ রান করা মারুমানি মুস্তাফিজুর রহমানের বলে সৌম্য সরকারের দারুণ ক্যাচে পরিণত হয়ে ফিরেন। ১০ রানে প্রথম উইকেট হারিয়ে ধাক্কা খেলেও দুর্দান্ত ছন্দে থাকা রেজিস চাকাভা ও ওয়েসলি মাধুভারের ব্যাটে দারুণ শুরুই পায় জিম্বাবুয়ে।

ক্রমেই ভয়ংকর হয়ে জুটি ভাঙতে দলের ত্রাতা হয়ে ওঠেন সাকিব আল হাসান, দুর্দান্ত ফিরতি ক্যাচে ২৩ রান করা ওয়েসলি মাধুভারেকে ফিরিয়ে ৬৪ রানের জুটি ভাঙেন তিনি। মাধুভারে আউট হলেও ব্যাট হাতে বিধ্বংসী ছিলেন রেজিস চাকাভা, সরাসরি থ্রোয়ে চাকাভাকে ড্রেসিংরুমের পথ দেখান উইকেটরক্ষক ব্যাটার নুরুল হাসান সোহান।

অধিনায়ক সিকান্দার রাজাকে শূন্য হাতে ফেরান পেসার শরিফুল ইসলাম, বড় স্কোরের স্বপ্ন দেখা দলটি একই ওভারে সেরা দুই ব্যাটারকে হারিয়ে হঠাৎই চাপে পড়ে যায়। ৩৫ রান করা ডিওন মেয়ার্সকে শরিফুল ফেরালে শেষ দিকে আর কোন জিম্বাবুইয়ান ব্যাটার পরিস্থিতির দাবি মেটাতে পারেননি, জিম্বাবুয়েও ১৫২ রানের বেশি স্কোর গড়তে পারেনি।লুক জঙ্গয়ে ১৮ রানের ইনিংস খেলেন, রায়ান বার্লের দুর্দান্ত এক রানিং ক্যাচ নিয়েছেন একাদশে না থাকা শামীম হোসেন পাটোয়ারী। বাংলাদেশের হয়ে ৩ উইকেট পেয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান, দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও শরিফুল ইসলাম।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

জিম্বাবুয়ে ১৫২/১০ (১৯ ওভার; ওয়েসলি মাধুভারে ২৩, রেজিস চাকাভা ৪৩, ডিওন মেয়ার্স ৩৫, লুক জঙ্গয়ে ১৮, মুস্তাফিজুর রহমান ৩/৩১, শরিফুল ইসলাম ২/১৭, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ২/২৩)বাংলাদেশ ১৫৬/২ (১৮.৫ ওভার; নাঈম শেখ ৬৬*, সৌম্য সরকার ৫০, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ১৫, নুরুল হাসান সোহান ১৬)।

শর্টলিংকঃ