রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ইউএনএইচসিআরেরর সাথে চুক্তি

 কক্সবাজার প্রতিনিধি : মিয়ানমারে নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত হয়েই রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো হবে। নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিত করতেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া বিলম্ব হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন জাতিসংঘের রোহিঙ্গা বিষয়ক সংস্থা ‘ইউএনএইচসিআর’কে সম্পৃক্ত করে চুক্তি হয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ।

শাহারিয়ার আলম বলেন, জাতিসংঘের এই সংস্থাকে সাথে নিয়ে রোহিঙ্গাদের নিরাপদে স্বদেশে ফেরত পাঠাতে চায় বাংলাদেশ। তাড়াহুড়া করলে এই পরিস্থিতি ব্যাহত হওয়ার আশংকা রয়েছে বলে তিনি জানান। আজ সোমবার কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালংএ ইউরোপিয় ইউনিয়নের ৩২ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদলকে সাথে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন কালে এইসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম। সকালে ইইউ প্রতিনিধি দল রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যান। প্রতিনিধিরা নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলেন। ইইউ প্রতিনিধিদলের প্রধান জিন লামবারট জানান, মিয়ানমারের পরিস্থিতি উদ্বেগজনক।

ইউরোপিয় ইউনিয়ন ও আন্তজাতিক মহল মনে করেন রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর আগে মিয়ানমার সরকারকে নিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের যে পরিস্থিতি কথা বর্ননা করেছেন, তাতে কোনভাবে রোহিঙ্গাদের অনুকূলে নয়। তাই রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। নিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করে রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে মিয়ানমারের প্রতি আহবান জানান তিনি। এসময় প্রতিনিধিদলের সাথে অন্যান্যদের সাথে ছিলেন, জেমস নিকলসন, রিচার্ড করবেট, ওয়াযিদ খান,সাজ্জাদ করিম, মার্ক তারাবেলা সহ ৩২জন ইউরোপিয় ইউনিয়নের সদস্য। পরিদর্শণের সময় রোহিঙ্গাদের সাথে আলাপ ছাড়াও ত্রাণ কার্যক্রমে অংশ গ্রহন ও আন্তর্জাতিক সংস্থার বিভিন্ন প্রকল্প ঘুরে দেখেন।

শর্টলিংকঃ