মিয়ানমারে সশস্ত্র বিদ্রোহীদের হামলা ১০ পুলিশ নিহত

মিয়ানমারে সশস্ত্র ব্যক্তিদের হামলায় কমপক্ষে ১০ পুলিশ নিহত হয়েছেন। দেশটির শান প্রদেশের নাউংমন অঞ্চলে শনিবার ভোরবেলায় এই হামলার ঘটনা ঘটে। ক্ষুদ্র জাতিসত্তাগুলোর সশস্ত্র বিদ্রোহীদের একটি জোট এ হামলা চালায়।

বিদ্রোহী এই জোট দেশটি প্রথম থেকেই সেনা অভ্যুথানের বিরোধিতা করে আসছে । এই বিদ্রোহী জোটে রয়েছে আরাকান আর্মি, তাং ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি ও মিয়ানমার ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্স আর্মি। শান নিউজ নামের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম হামলায় দশজন পুলিশ নিহত হয়েছে বলে জানানো হয়।

অপর সংবাদ সংস্থা শুয়ি ফি মিয়ায় প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, নিহত পুলিশের সংখ্যা ১৪। এ বিষয়ে সামরিক সরকারের মুখপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করেও কোনো সাড়া পায়নি সাংবাদিকেরা।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের মাধ্যমে অং সান সু চির নির্বাচিত সরকারকে উৎখাতের পর থেকে দেশটির জনগণ সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করে। এসব বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে ছয়শ’রও বেশি বিক্ষোভকারীকে হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী।

সহিংসতা বৃদ্ধির মধ্যেই দেশটির প্রায় এক ডজন সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী বিক্ষোভকারীদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই শুরুর ঘোষণা দেয়। এছাড়া অভ্যুত্থানে উৎখাত হওয়া সরকারের যেসব আইনপ্রণেতা আত্মগোপনে গেছেন তারাও একটি ‘জাতীয় ঐক্যের সরকার’ গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন। এই ঐক্যের সরকারে দেশটির সংখ্যালঘু জাতিসত্ত্তার প্রভাবশালী নেতারাও রয়েছেন।

এদিকে দেশটিতে বিক্ষোভ দমনে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে শুক্রবার রাতভর অভিযান চালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। তাদের নির্বিচার গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৬০ জন। নিরাপত্তা বাহিনী প্রায় গোটা রাত এভাবে তাণ্ডব চালানোয় হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

শর্টলিংকঃ