বিরামপুরে পুলিশের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

সাংবাদিকের সহধর্মিনী চৌ: মোরছেলিনাকে শ্লীতাহানী ও বুকে পিস্তল ঠেকিয়ে হত্যার হুমকীদাতা সন্ত্রাসী মো: শাহিনের পক্ষ নিয়ে বাদিনীর অভিযোগ কিংবা মামলা গ্রহন করেনি দিনাজপুর বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান এবং ওসি তদন্ত মতিয়ার রহমান। সন্ত্রাসী ও পুলিশী হয়রানীর শিকার মোরছেলিনা ৫জনকে আসামী করে দিনাজপুরে আদালতে মামলা দায়ের।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপরোক্ত অভিযোগ করেন কুমিল্লার সাংবাদিক আবু নাছেরের স্ত্রী চৌ: মোরছেলিনা আখতার।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত কয়েকদিন আগে বিরামপুরের পৈত্রিক নিবাসে দুই সন্তানসহ বেড়াতে এসেছিলেন। গত ২১ র্মাচ তার পালিত ভাই মো: সাইদুর রহমানের বাড়িতে বেড়াতে যান। ওইদিনই নিজ বাড়িতে ফেরার সময় সন্ত্রাসী ও ভুমিদ:স্যু মো: শাহিনসহ তার সঙ্গীরা আসামী আরঙ্গজেব চৌ: (বাদশা)‘র বাড়ির সামনে পিস্তল,চাপাতি,ছোরাসহ বিভিন্ন অস্ত্রেসজ্জিত হয়ে তার অটোরগতি রোধ করে। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসী শাহিন তাকে অটোতেই বুকে পিস্তল ঠেকিয়ে সন্তানদের সামনেই গুলি করে হত্যার হুমকি দিতে থাকে। এসময় অন্যরা এলোপাতারী ছোরা,লাঠি ও লোহার রড দিয়ে অটো বাইকটি ভাংচুর চালায় এবং নগদ অর্থ জোরপূর্বক কেড়ে নেয়। এসময় আমার আত্বচিতকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা আমাকে হত্যার হুমকী দিয়ে চলে যায়।

এব্যাপারে বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান ও তদন্ত কর্মকর্তা মতিয়ারের কাছে সন্ত্রাসী শাহিনের কাছে পিস্তল আছে অভিযোগ করলেও তারা দু‘জনেই উল্টো সন্ত্রাসী শাহিনের পক্ষ নিয়ে অভিযোগকারীকে চরমভাবে অপমান অপদস্ত করেছে। কোনোভাবেই থানা কর্তৃপক্ষ আমার অভিযোগ আমলে না নিয়ে উল্টো আমাকেই অশ্লীল গালাগালসহ নানান রকমের হেনস্তা করেছে। পরবর্তীতে আমি বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রট আমলী আদালত(৭) দিনাজপুরে ৫ জনের নাম উল্লেখসহ মামলা দায়ের করেছি যার নং ৯৩/২১ সি আর।

সংবাদ সম্মেলনে ওই নারী বলেন,আগ্নেয়াস্ত্রধারী সন্ত্রাসী মো: শাহিনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেও কোনোফল না পেয়ে আমি হতাশ হয়েছি। সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে সন্ত্রাসী শাহিন এবং বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান ও ওসি তদন্ত মতিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে প্রশাসনিক কঠোর শাস্তির দাবী করছি। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শিশু সন্তানসহ সাংবাদিক আবু নাছের খান।

শর্টলিংকঃ