বিপদসীমার ওপরে নদ নদীর পানি, প্লাবিত ৩০ গ্রাম

গাইবান্ধায় নদনদীগুলোতে দ্বিতীয় দফায় আবারও পানি বাড়তে শুরু করেছে। গত কয়েক দিনের ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়িঢলে ব্রহ্মপুত্র, তিস্তা ও ঘাঘটসহ সব গুলো নদীর পানি আবারও বাড়তে শুরু করেছে।

সোমবার দুপুর ১২ টার পানি উন্নয়ন বোর্ডের দেয়া তথ্য অনুযায়ি ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বিপৎসীমার ৬১ সেন্টিমিটার, ঘাঘট নদীর পানি ৩৭ সেন্টিমিটার ও তিস্তা নদীর পানি ১৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে সদর, সুন্দরগঞ্জ, ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার নিম্নাঞ্চল গুলোতে নতুন করে পানি প্রবেশ করে অন্তত ৩০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

বাঁধ, উচ্চ স্থান ও বিভিন্ন স্কুলে আশ্রয় নেয়া লোকজন বাড়িতে ফিরতে শুরু করলেও নতুন করে পানি বাড়ায় আবারও নিরাপদ স্থানে ফিরে যাচ্ছেন তারা। ফলে চরাঞ্চল ও নদী তীরবর্তী এলাকাগুলোর মানুষ আবারো শুকনো খাবার, বিশুদ্ধ পানি, জ্বালানি ও গো-খাদ্যের সংকটে পড়েছে। বন্যায় কর্মহীন হওয়ার শ্রমজীবি মানুষগুলোর মধ্যে খাদ্য সংকট দেখা দিচ্ছে। এ ছাড়াও উত্তরাঞ্চলের লালমনির হাট, কুড়িগ্রাম ও রংপুরের প্রধান প্রধান নদ নদীর পানি গত ২৪ ঘন্টায় বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

শর্টলিংকঃ