নবাবগঞ্জে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে দুই ডাকাত নিহত

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার ছোট মাগুড়া এলাকায় বৃহস্পতিবার ভোররাতে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই যুবক নিহত ও  চার পুলিশ সদস্য আহত হন। আহতদের নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তারা হলেন, নবাবগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) মতিয়ার রহমান, কনস্টেবল রমেন মানিক, আবদুল কাদের ও তুষার রায়।

নিহতরা হল, গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার খদ্দ পাঠানপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মোহাম্মদ আলীর ছেলে, রফিকুল ইসলাম (২৮) ও দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার কৃষ্ণরায়পুর গ্রামের বাসিন্দা আবদুল হামিদের ছেলে ওয়াজেদ আলী (৩০)।

পুলিশ জানায়, দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে সড়ক ডাকাতির মামলায় রফিকুল ইসলাম ও ওহেদ আলীকে বুধবার সন্ধ্যায় গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তাদের নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে উপজেলার ছোট মাগুড়াগ্রামে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে আগে থেকেই ওঁৎ পেতে থাকা ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

নবাবগঞ্জ থানার ওসি অশোক কুমার চৌহান জানান, এসময় গ্রেফতারকৃত দুই ডাকাত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ ও ডাকাতদলের গোলাগুলিতে দুই ডাকাত গুলিবিদ্ধ হয়। গুলিবিদ্ধ রফিকুল ইসলাম ও ওয়াজেদ আলীকে  আশঙ্কাজনক অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

শর্টলিংকঃ