তানিয়াকে বাঁচতে দিলোনা বালির গর্ত!

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে করতোয়া নদীর বালি তোলার গর্তে পরে তানিয়া খাতুন (১৪) নামে এক নবম শ্রেণীর ছাত্রী মারা গেছে। সে উপজেলার সাপমারা ই্্উনিয়নের চক রহিমাপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের কন্যা ।

শুক্রবার দুপুরে পৌর এলাকার চাঁদপুর খলসী (বাল্যামারি) এলাকার করতোয়া নদীতে এই ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয়রা জানায়, কয়েকদিন আগে তানিয়া তার মামা বাড়ী চাঁদপুর খলসী (বাল্যামারি) একটি বিয়ে অনুষ্ঠানে বেড়াতে আসে। শুক্রবার দুপুরে ওই এলাকার ২ বান্ধবীর সাথে পাশর্^বর্তী করতোয়া নদীতে গোসল করতে নেমে ডুবে যায়। বান্ধবীদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে অনেক খোঁজা-খুঁজির প্রায় ঘন্টা পর তার লাশ বালির গর্ত থেকে উদ্ধার করে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, করতোয়া নদীর এই স্থানে অবেধ ভাবে বালি উত্তোলন করায় পানির নীচে ছোটবড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। যারা জানে না তার এই স্থানে গোসল করতে নামলে চোরাবালির গর্তে পরে তাদেও মারা যাওয়ার সমূহ আশংকা রয়েছে। তাই তারা অবেধ বালি উত্তোলণ বন্ধ করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানিয়েছে।

শর্টলিংকঃ