গোবিন্দগঞ্জে পৌর নির্বাচনে ত্রিমুখী লড়াই

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। স্থানীয় আওয়ামীলীগে কোন্দলের কারণে এই ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনা দেখছেন ভোটাররা।

এই নির্বাচনে মেয়র পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›দ্বীতা করছেন। তারা হলেন, আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার জাহাঙ্গীর আলম (নৌকা),বহিস্কৃত আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মুকিতুর রহমান রাফি (নারিকেল গাছ), বিএনপির প্রার্থী ও পৌর বিএনপির সভাপতি ফারুক আহমেদ (ধানের শীর্ষ),ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আনিছুর রহমান (হাত পাখা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জহুরা খাতুন আনিকা (মোবাইল ফোন)। ভোটাররা জানান, এই ৫প্রার্থীর মধ্যে মুলত- নৌকা, নারিকেল গাছ ও ধানের শীর্ষে লড়াই হবে।

উপজেলা যুবলীগের সভাপতি তাহেদুল ইসলাম রকেট বলেন, ইতিপূর্বের নির্বাচনে দেখা গেছে,নিজ দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থীর সঙ্গেই লড়াই হয়েছে আওয়ামীলীগের প্রার্থীর।সেক্ষেত্রে বিএনপি ছিল তৃতীয় স্থানে।তিনি মনে করেন, পৌর এলাকা নৌকার ঘাটি।আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা মির জাফরি না করলে নৌকার বিজয় হবে।

এ বিষয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা জানান, আওয়ামীলীগের একটি অংশ নিজ দলের বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে কাজ করছে। এই বিভক্তের কারণে তারা এ নির্বাচনে সুবিধাজনক অবস্থানে আছেন বলে মনে করেন। তাছাড়াও, আওয়ামীলীগ সরকারের শোষণ নিপিড়ণে ভোটাররা নৌকা প্রত্যাখান করেছে। গাইবান্ধা ও সুন্দরগঞ্জ পৌর নির্বাচনই তার প্রমান। এসব কারণে গোবিন্দগঞ্জ পৌর নির্বাচনে ধানের শীর্ষের বিজয়ের আশাবাদি তারা।

শর্টলিংকঃ