গাইবান্ধার আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদ রানা রিমান্ডে

গাইবান্ধা সদরে হাসান আলী (৫৫) নামে এক জুতা ব্যবসায়িকে হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদ রানাকে চারদিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। রোববার গাইবান্ধার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক এ রিমান্ড আদেশ দেন।

মাসুদ রানার বাড়ি গাইবান্ধা সদরের বল্লমঝাড় ইউনিয়নের নারায়ানপুর গ্রামে। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।হাসান আলী লালমনিরহাট জেলার মৃত হযরত আলীর ছেলে। তিনি একসময় গাইবান্ধায় আফজাল সুজ নামের জুতার দোকান পরিচালনা করতেন।

গাইবান্ধা সদর থানার ওসি মাহফুজার রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান,এর আগে তাকে গ্রেফতার করে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদনসহ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়।পরে আবেদনের শুনানি শেষে আদালত তার চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায় মাসুদ রানা এলাকায় দাদন ব্যবসায় করেন। আর্থিক লেনদেনের জের ধরে হাসানকে গত ৫ মার্চ মোবাইল ফোনে লালমণিরহাট থেকে গাইবান্ধায় ডেকে আনেন মাসুদ রানা। হাসানের কাছে ১৯ লাখ ৩২ হাজার টাকা পাবেন বলে তাকে নিজ বাড়িতে আটকে রাখেন মাসুদ। এরপর হাসান আলীর স্ত্রী বীথি বেগম গত ৬ এপ্রিল গাইবান্ধা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু শনিবার সকাল দশটার দিকে তারা খবর পান যে হাসানকে মেরে মাসুদ রানার বাড়িতে ঝুলিয়ে রাখা হয়। পরে পুলিশ নিহতের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় মাসুদ রানাকে আটক করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ