গলায় ছুরি ধরে বিধবাকে গণধর্ষণ, আটক ৩

নোয়াখালীর সেনবাগে গার্মেন্টর্সের এক নারী (৩৩) শ্রমিক গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের চিলাদী গ্রামে বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন রুবেল (২৪), নুর নবী (৪৩) ও আবুল কাশেম (৫৭)।

স্থানীয়রা জানান, ওই গার্মেন্টর্সে কর্মী চট্টগ্রাম থেকে ১২ বছরের ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ি ফিরছিলেন । তিনি পরিবহন থেকে স্ট্যান্ডে নেমে অটোরিকসায় বাড়িতে যাচ্ছিলেন। পথে অটোরিকসা চালক সেলিম ও তার দুই সহযোগী ছেলে ও মাকে অটোরিকসা থেকে নেমে নেয়। এ সময় তারা বিধবার গলায় চুরি ধরে তাকে রাতভর ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় শনিবার দুপুরে এলাকায় সালিশি বৈঠক বসে। বেঠকে ধর্ষণে ঘটনার সাথে জড়িত রুবেল ও নুরনবীকে উপস্থিত হলেও মূলহোতা অটোচালক সেলিম উপস্থিত হয়নি।

সালিশে আবুল কাশেম ও রুবেল ও নুরনবীকে কান ধরে ওঠবস করানো হয় এবং অর্থদন্ড করা হয়। পরে এ বিষয়ে অভিযোগ হলে স্থানীয় থানা পুলিশ সোমবার দুপুরে ওই তিনজনকে আটক করে। সেনবাগ থানার ওসি হারুন অর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ওই বিধরা রাতে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা করেছেন। ওই মামলায় আরও ৭-৮ জন অজ্ঞাত পরিচয়ে আসামি করা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ