ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি নির্বাচন

ঢাকা সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ঘোষণা আজ

রাজধানীর রাজনৈতিক অঙ্গনে আলোচনায় জায়গা দখল করে নিয়েছে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন । শুক্রবার এই দুই সিটির মেয়র পদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ২০ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এদের মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৮ জন ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ২০ প্রার্থী রয়েছেন। এখন আলোচনায় এসছে কে হচ্ছেন দুই সিটির মেয়রপ্রার্থী। তবে সব হিসাব-নিকাশের অবসান ঘটিয়ে শনিবার যাচাই-বাছাই শেষে চূড়ান্ত প্রার্থী ঘোষণা করবে আওয়ামী লীগ।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন- বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকন, ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য শেখ ফজলে নূর তাপস, আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত আইন বিষয়ক সম্পাদক নজিবুল্লা হিরু, ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম, আওয়ামী লীগ নেতা মো. নাজমুল হক, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক মহাসচিব অধ্যাপক এম এ রশিদ, আশরাফ হোসেন সিদ্দিকী ও হাজী আবুল হাসনাত।

আর উত্তর সিটির নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হচ্ছেন- বর্তমান মেয়র আতিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের শহীদুল্লা ওসমানী, সামাজিক সংগঠন ‘একটি পরিকল্পিত নগরী’র চেয়ারম্যান কুতুবউদ্দিন নান্নু, ভাসানটেক থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মেজর (অব.) মোহাম্মদ ইয়াদ আলী ফকির, শহীদ পরিবারের সন্তান অধ্যাপক মোহাম্মদ জামান ভূঁইয়া, ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীর, আলাউদ্দীন মোহাম্মদ, জেরিন সুলতানা কান্তা, আদম তমিজি হক, খায়রুল মজিদ, মিসেস রেহেনা ফরহাদ আইভি ও মোহাম্মদ ইদ্রিস আলী মোল্লা।

দলের নেকাকর্মীদের ধারণা, উত্তর সিটির মেয়র আতিকুল ইসলাম মনোনয়ন পেতে পারেন। জোর আলোচনায় রয়েছেন দক্ষিণ সিটির বর্তমান মেয়র সাঈদ খোকন ও এমপি ফজলে নূর তাপস।

শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় গণভবনে স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা হবে জননেত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে। সেখানে দুই সিটির মেয়র ও ১৭২ জন কাউন্সিলরকে মনোনয়ন দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে

এদিকে, বিএনপির দক্ষিণ সিটির একক প্রার্থী প্রয়াত মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেনর নাম শোনা যাচ্ছে।উত্তর সিটির বিশেষ সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন ও নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল ধানের শীষ চেয়েছেন। তাদের মধ্যে তাবিথ আউয়ালের মনোনয় পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি বলে মনে করেন দলের নেতাকর্মীরা।

আগামী ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটিতে ইভিএমে ভোটগ্রহণের কথা জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তবে ইভিএমের ব্যাপারে আপত্তি জানিয়েছে বিএনপি। নির্বাচন কমিশন বলেছে, সব দল ইভিএমের বিরুদ্ধে একমত হলে তারা সিদ্ধান্ত পাল্টাবেন। যদিও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ইভিএমের পক্ষেই মত দিচ্ছে।

শর্টলিংকঃ